অপরাধকুমিল্লা সদরফিচার

সাংবাদিক মাহফুজ বাবুর চাঁদাবাজি (ভিডিও)

Journalist Mahfuz Babu's extortion

সাংবাদিক পরিচয়ে কুমিল্লায় কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে বহুবার মাহফুজ বাবু নামে কথিত এক সাংবাদিকের নাম উঠে এসেছে। বিভিন্ন পত্রিকার ভূয়া আইডি কার্ড ব্যবহার করে ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষকে হুমকি দিয়ে চাঁদা আদায় করে৷ এতে বিপাকে পড়ছেন স্থানীয় পেশাদার সাংবাদিকরা ৷ স্থানীয়দের অভিযোগ, সাম্প্রতিক সময়ে মাহফুজ বাবুর নেতৃত্বাধীন কুমিল্লায় সাংবাদিক পরিচয়ে সংঘবদ্ধ কয়েকটি চক্র প্রতিনিয়ত সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীদের হয়রানি করে আসছে।

বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে তারা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বাড়ি, কারখানা থেকে নিয়মিত চাঁদাবাজি করে আসছে। তবে হয়রানির ভয়ে কেউ মুখ খুলছে না। এদিকে মাহফুজ বাবু আলোচনায় আসে প্রয়াত আইনমন্ত্রী এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মতিন খসরুর বিরুদ্ধে কটূক্তিমূলক মন্তব্য করায় আইসিটি মামলায় তিন মাসের অধিক কারাবন্ধি থেকে যা তখনকার সময়ে তার নিজ এলাকায় (কুমিল্লার ক্যান্টনম্যান্ট) চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। তার বিরুদ্ধে আইসিটি মামলা, চাঁদাবাজি মামলাসহ বেশ কিছু উক্ত আলোচিত মামলাটি এখনো চলমান রয়েছে।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয় ভুয়া সাংবাদিক মাহফুজ বাবু সহ জড়িত অপরাধীদের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযানের ব্যবস্থা নেয়া হবে৷ সম্প্রতি কুমিল্লার ক্যান্টনম্যান্ট এরিয়ায় ত্রাসের রাজত্ব গড়তে যাওয়া বাবুর নজর পড়েছে প্রবাসী রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের কষ্টার্জিত অর্থের দিকে। কুমিল্লার কোতোয়ালি থানাধীন ধনুয়াখালি গ্রামের সৌদি আরব প্রবাসী এবং বর্তমানে ঢাকায় ইলেক্ট্রনিক্স ব্যবসায়ী জনাব শাহ্‌ আলমের কাছে বেশ কয়েকবার চাঁদা দাবী করে ব্যর্থ হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে এবং উক্ত ব্যক্তির নামে মিথ্যা, বিভ্রান্ত ও বানোয়াট তথ্য প্রচার করছে যা দেশের প্রচলিত আইন বহির্ভূত।

এ নিয়ে কুমিল্লার বিভিন্ন সাংবাদিক বলেন তাঁর ব্যক্তিগত আইডির পাশাপাশি ভূয়া আইডি ব্যবহার করে আসছেন এবং প্রবাসীদের স্ত্রীদের টার্গেট করে নানা ছলচাতুরীর মাধ্যমে ফাঁদে পেলে তাদের সাথে অবৈধ শারীরিক সম্পর্কও গড়ে তোলার কথা ক্যান্টনম্যান্ট এরিয়ায়সহ পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন জায়গায় প্রচলিত। উঠতি বয়সের মেয়েদের দিয়ে বিভিন্ন ব্যবসায়ী মহলকে জিম্মি করে টাকা আদায় করে এমন অভিযোগও উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

এ বিষয়ে জনাব শাহ্‌ আলম আইবিএনকে জানান মাহফুজ তার ব্যক্তিগত আইডিসহ বিভিন্ন ভূয়া আইডি থেকে আমাকে হেয় করার জন্যে অপপ্রচারের পাশাপাশি চাঁদাবাজিতে ব্যর্থ হয়ে সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর অপপ্রচার চালাচ্ছে। যার ফলশ্রুতিতে সামাজিকভাবে আমি হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছি ও ব্যবসায়ীক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছি। এমতবস্থায়, আমার সার্বিক দিক বিবেচনা করে উক্ত ব্যক্তি মাহফুজ বাবুকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানাচ্ছি। ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন। সূত্র: আইবিএন২৪

Tags
Close
Close