জেলার খবর

মামুনুলকে নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়া নিয়ে আওয়ামীলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০ !

মামুনুলকে নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়া নিয়ে আওয়ামীলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০ !

কুষ্টিয়ায় হেফাজত নেতা মামুনুল হককে নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় বাড়িঘরে ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ৭টার দিকে সদর উপজেলার জিয়ারখি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুল হক ও সাবেক সভাপতি আহসান সরদারের মধ্যে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। আজিজুল হকের সমর্থক জিয়ারখি ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শরীফুল ইসলাম হেফাজত নেতা মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। প্রতিপক্ষ আহসান সরদারের কয়েকজন ওই পোস্টে মামুনুল হকের পক্ষ নিয়ে কমেন্ট করেন। এ ঘটনার জের ধরে আজ সকালে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। দুপক্ষের ইটপাটকেল নিক্ষেপে এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এ সময় উভয়পক্ষের ২০ জন আহত হন। কমপক্ষে ১০টি বাড়িঘরে ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে সাইদুল (৪০) নামের একজনের অবস্থা গুরুতর

এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুল হকের দাবি, ‘আহসান সরদারের লোকজন হেফাজত নেতা মামুনুল হকের পক্ষ নিয়ে আমার লোকদের ওপর হামলা চালায়।’

অপরদিকে, আহসান সরদারের দাবি, ‘হেফাজত’ আখ্যা দিয়ে আজিজুল হকের লোকজন আমাদের লোকজনের বাড়িঘরে হামলা করে।’

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অপারেশন মামুনুর রহমান বলেন, ‘কোনো পোস্ট দেওয়া নয়, পুরনো একটি মামলা আপোস নিয়ে বিরোধে সংঘর্ষ হয়েছে। পরিস্থিতি এখন পুলিশের নিয়ন্ত্রণে।’

Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker