অপরাধচান্দিনা

বিএনপির সন্ত্রাসী,মানব পাচারকারী ফারুক মৈশান ও জসিম মৈশানের নেতৃত্বে ভাড়াটে গুন্ডা দ্বারা জয় কে হত্যা করার চেষ্টা

চান্দিনা উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও চান্দিনা উপজেলা আওয়ামীলীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক হাজী আঃ মালেক সাহেবের ছেলে #ঢাকা বি,এফ,শাহীন কলেজের মেধাবী ছাত্র, চান্দিনা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক #দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক ও #মাইজখার ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হাছান জয়ের কে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে তার নিজ এলাকার টপটেরর বিএনপির সন্ত্রাস,মানব পাচারকারী ফারুক মৈশান ও জসিম মৈশানের নেতৃত্বে তারা তাদের ভাড়াটে গুন্ডা দ্বারা জয় কে হত্যা করার চেষ্টা করেছে। এমতাবস্থায় তাকে হসপিটালে নিয়ে যাওয়ার পথে জয়ের সাথে থাকা অবস্থায় মাইজখার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা #মোঃ আকবর আলী ও মাইজখার ইউনিয়ন ছাত্রলীগের #দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক মোঃ মাহদী হাসান কে ক্যান্টমেন্ট এলাকা হতে ফারুক মৈশানের ভাড়াটে গুন্ডা বাহিনীরা তাদের কে উঠিয়ে নিয়ে জিম্বি করে তাদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা দাবি করে, তারা টাকা দিতে অপারগতা পোষন করলে গুন্ডা বাহীনি গুরুতর ভাবে তাদের কে মারধর করে আহত করে, পরবর্তীতে পুলিশ প্রসাশনের মাধ্যমে তাদের কে উদ্ধার করে কুমিল্লা ট্রমা হসপিটালে জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়। এমতাবস্থায় ও তাদের গুন্ডামীর শেষ নেই। হসপিটাল ভর্তি অবস্থায় তারা (ফারুক মৈশানের গুন্ডা) জয় সহ আহত বাকি দুজনকে হসপিটাল থেকে তুলে নেওয়ার চেষ্টা করেছে। এমতাবস্থায় তাদের জীবন রক্ষার্থে জরুরি ভিত্তিতে কুমিল্লা ট্রমা থেকে ঢাকার কোন একটি হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয়।

আমরা সবাই জয় এবং তাহার সাথে বাকি দুজনের উপর এমন হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

বিঃদ্রঃ
২০০৩ সালে ২৫ শে অক্টোবর নাবালক মজুমদরের বাড়ীতে এবং রাজ্জাক মজুমদারের বাড়ীর সামনে আলীকামোড়া গ্রামের কৃতি সন্তান মোঃ মুজিবুর রহমানের (মজু) ছোট ভাই মোঃ জামাল হোসেন কে ফারুক মৈশানেরাই দিবালোকে কুপিয়ে হত্যা করে।

ফেইসবুক থেকে সংগ্রহীত

Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker