দাউদকান্দি

দাউদকান্দিতে এএসপি জুয়েল রানার নেতৃত্বে অস্ত্রসহ দুই জলদস্যু আটক

দাউদকান্দিতে এএসপি জুয়েল রানার নেতৃত্বে অস্ত্রসহ দুই জলদস্যু আটক

||আলিফ মাহমুদ কায়সার||

কুমিল্লার দাউদকান্দির গৌরিপুরে গোমতী নদীতে ডাকাতির করার প্রাক্কালে দুই জন জলদস্যুকে অস্ত্রসহ হাতে নাতে গ্রেফতার করে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার রাত ৯ টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গোমতী নদীতে দাউদকান্দি সার্কেল এএসপি মোঃ জুয়েল রানা ও গৌরিপুর তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে গৌরিপুর তদন্ত কেন্দ্রের একটি পুলিশ টিম এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।
এ সময় জলদস্যুদের কাছ থেকে ব্যবহৃত দ্রুতগামী একটি নৌকা, বিশালাকার ও ধারালো ১ টি তলোয়ার, ১ টি ড্রেগার, ৩ টি রামদা, ১ টি সুইচ গিয়ার উদ্ধার করে।
আটককৃতরা হলেন তিতাস উপজেলার ষোলকান্দির মৃত ফজর আলীর ছেলে বাহার উদ্দিন(৩৫) অপরদিকে একই উপজেলার দড়িকান্দি গ্রামের আবদুল লতিফ এর ছেলে মোসলেম উদ্দিন (৩৬)। এ সময় পুলিশের উপিস্থিতি টের পেয়ে আরো অস্ত্র গোমতী নদীতে ফেলে দিয়ে বেশ কয়েকজন ডাকাত পালিয়ে যায়।
এ বিষয়ে সার্কেল এএসপি জুয়েল রানা বলেন, এই অভিযান আমাদের নিরাপদ নৌপথ প্রতিষ্ঠার প্রতিশ্রুতির অংশ। এই জলদস্যুরা করোনায় লক ডাউনের সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করেছিলো। কিন্তু আমরা পুর্বে থেকেই গোমতী নদীর ডাকাতি নিয়ে সতর্ক ছিলাম। ফলে এই জলদস্যুরা ডাকাতির করাই আগেই আমরা হাতে নাতে ধরে ফেলেছি। গোমতী নদীতে নিরাপদ নৌপথ উপহার দেওয়াই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। আটককৃত ও পলাতক জলদস্যু বিরুদ্ধে ডাকাতির প্রস্তুতিসহ অস্ত্র আইনে মামলা নেওয়া হবে।

Close
Close