অপরাধচান্দিনা

১৩ নং জোয়াগ ইউনিয়নের ধেরেরা গ্রামে মাদকের আখড়া,জরুরি ভিত্তিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন স্থানীয় জনগন,

১৩ নং জোয়াগের ধেরেরা গ্রামে মাদকের আখড়া,জরুরি ভিত্তিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন স্থানীয় জনগন,

নিউজ ডেক্সঃ জোয়াগ ইউনিয়ন।

চান্দিনার ১৩ নং জোয়াগ ইউনিয়নের ধেরেরা গ্রামের বাজার সহ আশেপাশের বিভিন্ন স্পটে সবাইর সম্মুখে চলছে মাদকদ্রব্য বিক্রি করার উৎসব,ধেররা গ্রাম সহ আশেপাশের গ্রামের জনগণের মধ্যে আতংক দেখা দিয়াছে,মরণ নেশা ইয়াবা সহ গাঁজা এতটাই বেড়ে গেছে যেনো মাদকদ্রব্য বেচাকেনার হাঁট,যে কেউ চাইলে হাতের নাগালে মাদক পাওয়া যায়,এতে করে ধেররা সহ আশেপাশের গ্রামের তরুণ যুবকরা দিনদিন মাদকের দিকে ধুকছে, জনগণ মাদকের গডফাদারদের ভয়ে প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছে না,কারণ তারা এতটাই বেপরোয়া কেহ কোন প্রতিবাদ করলে তাদের কে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে শারিরিক নির্যাতন করে,তারা একটি সংঘবদ্ধ চক্র তাই কেহ প্রতিবাদ করতে সাহস পায়না এলাকার জনগণ অসহায় এই অসহায়ত্বের থেকে মুক্তির জন্য স্থানীয় জনগণ প্রশাসনের জরুরি হস্তক্ষেপ চান,এমন ১৩ নং জোয়াগ ইউনিয়ন কে মাদকমুক্ত করার আহবান জানান স্থানীয় সচেতন নাগরিকরা।

এমতাবস্থায়  ১৩ নং জোয়াগের ধেরেরা,কৈলাইন লক্ষীপুর,দেওকামতা,ওরাইন, গ্রামে মাদকদ্রব্য বিক্রি বন্ধ করার জরুরি ভিত্তিতে চান্দিনা উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন স্থানীয় জনগন,

পূর্বে ১৩ নং জোয়াগ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান তালুকদার মাদক বিক্রেতা মোঃ ইয়াকুব ধেরেরা মোঃ হারুন ধেরেরা,মোঃ ইউসুফ ধেরেরা,শাওন ধেরেরা,মহসিন ভূয়ারী, ইউনুস কৈলাইন, মনির হোসেন কৈলাইন লক্ষীপুর,মোঃ কাশেম দেওকামতা সহ আরও অনেক কে মাদক সহ প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করেন,এদের মধ্যে এখনও অনেকে মাদকের সাথে জড়িত, স্থানীয় চেয়ারম্যান জনাব মেহেদী হাসান তালুকদার সর্বদা মাদকের বিরুদ্ধে জোড়ালো ভূমিকা রেখেছেন যা এলাকায় প্রশংসনীয়।

এক অনুসন্ধানে জানা যায়, ১৩ নং জোয়াগের ধেরেরা বাজার সহ গ্রামের ভিতরে ছোট ছোট মাদকদ্রব্য বিক্রি করা ও সেবনের অনেকগুলো আস্তানা আছে,ধেররা গ্রামে মাদক কিনতে প্রতিদিন ধেররা গ্রামে বিভিন্ন গ্রামের মানুষ যাতায়াত করছে কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই যেনো দেখার কেহ নেই,মনে হচ্ছে ধেররা গ্রাম কে মাদক বিক্রির লাইসেন্স দিয়াছে কতৃপক্ষ, বর্তমানে ধেররা সহ আশেপাশের গ্রামে মাদকের ডিলার মোঃ নোমান হোসেন।

মোঃ নোমান হোসেন মরণ নেশা ইয়াবা সরবরাহ দিচ্ছে জোয়াগের আনাচে-কানাচেতে এমনি একটি প্রমাণ অনুসন্ধান টিমের কাছে হাতে এসেছে এতে স্পষ্ট প্রতিয়মান মোঃ নোমান হোসেন ইয়াবার ডিলার এবং খুচরা মরণ নেশা ইয়াবা বিক্রি করছে মোঃ সুমন(হাতকাটা ) মোঃ ইয়াকুব, সহ আরও অনেকে,মাদকের বিরুদ্ধে স্থানীয় জনগণের মাঝে ক্ষোভ দিন দিন বাড়ছে যে কোন সময় এলাকার জনগণ মানববন্ধন সহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করার পদক্ষেপ নিচ্ছে কারণ এতটাই বেপরোয়া হয়ে উঠেছে মাদক যা বাংলাদেশ স্বাধীনতার আগে কখনও এলাকাবাসী দেখেনি,মাদকের কারণে ধেররা প্রতিনিয়ত হচ্ছে বিভিন্ন অপকর্ম সহ অপরাধ মূলক ঘঠনা,অভিযোগ আছে ধেররা গ্রামের উঃ জোয়াগের নিরহ গরীব ভাঙ্গারী ব্যাবসায়ী মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন কে মাদক দিয়ে ফাঁসিয়ে তাকে মারধর সহ নগদ অর্থ নিয়ে ছেড়ে দেওয়ার,ভূক্তোভোগী নিরহ গরীব ভাঙ্গারী ব্যাবসায়ী জাহাঙ্গীরের উপর এমন নেক্কারজনক কর্মকাণ্ডে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে ইতিমধ্যে তাদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে,সংঘবদ্ধ মাদক কারবারিরা নিরহ গরীব লোকদের কে মাদক দিয়ে আটক করে হয়রানি করছে তাদের সবকিছু লুটপাট করে নিচ্ছে আমাদের অনুসন্ধান টিম তাদের চবি ও প্রমাণ সহ তাদের কে জনসম্মুখে নিয়ে আসবে অতি শীগ্রই,

ইয়াবার ডিলার মোঃ নোমান হোসেব মরণ নেশা ইয়াবা মাদক পাইকারি বিক্রি করেন খুচরা বিক্রেতা মোঃ ইয়াকুব মোঃ সুমা(হাতকাটা সুমন)সহ আরও অনেকে,এক অনুসন্ধানে মাদকের ডিলার মোঃ নোমান হোসেন ও খুচরা বিক্রি করা মোঃ ইয়াকুব মোঃ সুমা(হাতকাটা সুমন) এর মাদক বিক্রির সংলিষ্টতার প্রমাণীত নিশ্চিত হয়েছে আমাদের অনুসন্ধান টিম।

সার্কেল দাউদকান্দি ও চান্দিনা এএসপি জনাব জুয়েল রানা মহোদয় সহ চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয় ও চান্দিনা থানার অফিসার ইনচার্জ মহোদয়ের কাছে স্থানীয় এলাকাবাসী সম্মান প্রদর্শন করে বিনীতভাবে আহবান করে বলেন, জরুরি ভিত্তিতে ধেররা সহ আশেপাশের গ্রামে মাদক পাইকারী ব্যবসায়ী মোঃ নোমান হোসেন ও মোঃ ইয়াকুব মোঃ সুমা(হাতকাটা সুমন) সহ খুচরা বিক্রয় করা মাদকের গডফাদারদের কে আইনের আওতায় নিয়ে তাদের শাস্তি নিশ্চিত করে এলাকার যুবসমাজ কে মাদকের হাত থেকে রক্ষা সহ জোয়াগ কে মাদকমুক্ত করার দাবি জানান,

অনুসন্ধান পর্ব–১
বিস্তারিত নাম ঠিকানা চবি সহ দেখতে চোখ রাখুন।

Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker