চান্দিনাজাতীয়রাজনীতি

চান্দিনা পৌর নির্বাচন; প্রতিপক্ষের হামলার প্রতিবাদে আ’লীগ প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

চান্দিনা পৌর নির্বাচন; প্রতিপক্ষের হামলার প্রতিবাদে আ’লীগ প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

চান্দিনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি।
কুমিল্লার চান্দিনায় নৌকা প্রতীক সমর্থিত নেতা-কর্মীদের উপর স্বতন্ত্র প্রার্থীর হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন আওয়ামীলীগ প্রার্থী মো. শওকত হোসেন ভূইয়া।

সোমবার (১১ জানুয়ারী) রাত পৌঁনে ৮টায় চান্দিনা উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।
এসময় তিনি লিখিত বক্তব্যে জানান- ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর থেকে আমার সমর্থিত নেতা-কর্মীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট প্রার্থনা করে আসছেন। সোমবার (১১ জানুয়ারী) বেলা ১১টার সময় আমার ৭নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি মো. আবুল কালাম ও স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা হাজী নূরুল ইসলাম রিক্সা যোগে চান্দিনায় আসছিল। এসময় আমার প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম হোসেন পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ৭-৮টি মাইক্রোবাস যোগে ৭০-৮০জন সমর্থক নিয়ে ছায়কোট এলাকায় প্রবেশ করে আমার সমর্থকদের দেখে তারা গাড়ি থেকে নেমে অতর্কিত হামলা চালায়। তাদের ডাক চিৎকারে আমার অন্য নেতা-কর্মীরা ছুটে আসলে তাদেরকেও মারধর করে। এতে আমার ৭ নেতা-কর্মী আহত হয়। এর মধ্যে কালাম ও নুরুল ইসলামকে মারাত্মক আহত করে, তারা কুমেকে ভর্তি আছে।

আমার লোকজনকে পিটিয়ে আহত করে আবার তিনিই সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে বলেন- ‘উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও এফবিসিসিআই সিনিয়র সহ-সভাপতি মুনতাকিম আশরাফ টিটু সিআইপি, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম মুন্সি ও উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী ইয়াছিন অভি’র নেতৃত্বে তার সমর্থকদের উপর হামলা চালানো হয়েছে’। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। হামলার ঘটনার সময় বা পরে তারা ওই এলাকায় কেউ যায়নি। কিন্তু গণমাধ্যম ও সোস্যাল মিডিয়ায় গুজবি তথ্য দিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম হোসেন জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে।
সংবাদ সম্মেলনে প্রার্থী শওকত হোসেন ভূইয়া তার বক্তব্যে আরও বলেন- ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম হোসেন এর আপন মামা সাবেক পৌর মেয়র আব্দুল মান্নান সরকার বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি রসিদের ফ্রিডম পার্টির কো-অর্ডিনেটর ছিলেন। ফ্রিডম পার্টির এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে শামীম স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে আমাদের নেতা-কর্মীদের উপর একের পর এক অতর্কিত হামলা চালিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি অর্থের বিনিময়ে নির্বাচন অফিস ও প্রশাসন ম্যানেজ করে নির্বাচনে বিজয়ী লাভ করবেন বলে জন সম্মুখে প্রচার করছেন। এতে সাধারণ ভোটারদের মাঝে উৎকন্ঠা বিরাজ করছে।
আমি আপনাদের (সংবাদিক) মাধ্যমে আমার নেতা-কর্মীদের উপর হামলার নিন্দা জানাই এবং একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাই।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল জলিল, উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি অধ্যাপক শ্রীধর বণিক, সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক এনায়েত উল্লাহ ভূইয়া, আওয়ামীলীগ নেতা অধ্যাপক কামরুল হাসান মুকুল, অধ্যাপক আব্দুল আল মামুন, এড. শরীফুল ইসলাম, জাকির হোসেন লিটন প্রমুখ।

Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker