চান্দিনা

চান্দিনার পৌরসভার নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোঃ শওকত হোসেন ভূঁইয়ার নির্বাচনী ইস্তেহার ঘোষণা

চান্দিনার পৌরসভার নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোঃ শওকত হোসেন ভূঁইয়ার নির্বাচনী ইস্তেহার ঘোষণা
————

সন্মানিত পৌরবাসী ও প্রিয় সাংবাদিক বন্ধুগণ-
সবাইকে সশ্রদ্ধ সালাম ও অভিবাদন। আসন্ন চান্দিনা পৌরসভা নির্বাচনের এই মহেন্দ্রক্ষণে আমার নির্বাচনী ইস্তেহার উপস্থাপন করতে যেয়ে আমি প্রথমে শ্রদ্ধা নিবেদন করি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান এর প্রতি । শ্রদ্ধা নিবেদন করি ,মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী ৩০ লক্ষ শহীদের প্রতি।
আগামী ১৬ জানুয়ারী চান্দিনা পৌরসভার নির্বাচনে মানবতার নেত্রী দেশরত্ন বাংলাদেশের সফল প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ থেকে মেয়র পদে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন দেয়ায় আমি মহান আল্লাহর দরবারে লাখো শোকরিয়া আদায় করি। সেই সাথে প্রিয় নেত্রীর কাছে অবনত চিত্তে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করি, কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করি আমার প্রাণপ্রিয় নেতা চান্দিনার অভিবাবক জনাব আলহাজ অধ্যাপক মোঃ আলী আশরাফ এম.পি মহোদয়ের প্রতি ও তাঁর সুযোগ্য সন্তান FBCCI এর সন্মানিত সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ চান্দিনা উপজেলার সংগ্রামী সভাপতি জনাব মুনতাকিম আশরাফ টিটু সাহেবের প্রতি। আরও কৃতজ্ঞতা জানাই চান্দিনা পৌরসভা সহ চান্দিনা উপজেলার সকল মুজিবাদর্শের শ্রদ্ধেয় নেতা কর্মীদের প্রতি। আমি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি পৌরসভার সন্মানিত ভোটারদের প্রতি এবং চান্দিনা জন প্রশাসনের কর্মকর্তা ও কর্মচারী ও আমার দীর্ঘদিনের চলার সাথী প্রিয় সাংবাদিক ভাইদের প্রতি।
প্রিয় পৌরবাসী আমার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে আমাকে আদেশ উপদেশ পরামর্শ সাহচর্য ও সমর্থন দিয়ে এসেছেন দেশ মাতৃকার কৃতি সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা চান্দিনার সূর্য সন্তান এ জনপদ থেকে বার বার নির্বাচিত মাননীয় সংসদ সদস্য বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সাবেক ডেপুটি স্পিকার , চান্দিনা মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ সহ বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক মোঃ আলী আশরাফ এম.পি মহোদয় । যিনি ১৯৯৬ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে ১৯৯৭ সালে এই অবহেলিত চান্দিনাকে পৌরসভায় রুপান্তরিত করেন । আ্মাদের এই পৌরসভায় আরও তিনটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল কিন্তু প্রথম দুটি নির্বাচনে নির্বাচিত সন্মানিত মেয়র মহোদয়গন পৌরসভার উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য কোন ভূমিকা রাখেন নাই। ৩য় বারের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ থেকে মনোনীত বর্তমান মেয়র জনাব মফিজুল ইসলাম সাহেব নির্বাচিত হওয়ার পর বিগত পাঁচ বছরে মাননীয় সংসদ সদস্য মহোদয়ের সার্বিক সহযোগিতায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন যা বিগত ৫০ বছরেও হয় নাই ।

প্রিয় বন্ধুগণ আমি মোঃ শওকত হোসেন ভূঁইয়া ব্যাক্তিগত জীবনে চান্দিনার হারং গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের সন্তান। আমার পিতা মরহুম আকবর আলী ভূঁইয়া যিনি অত্র অঞ্চলের প্রথম মুসিলম ম্যাট্রিকুলেট।। আমার পরিবারের সকলেই আপনাদের দোয়ায় উচ্চ শিক্ষিত ও সমাজে প্রতিষ্ঠিত এবং আমি ২০১৮ সালে পবিত্র হজব্রত পালন করি। আমার রাজনৈতিক জীবনে আমি কখনও অন্যায়ের কাছে মাথা নত করি নাই। নিজের সীমিত সাধ্য নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি যা আমাকে শিখিয়েছেন আমার নেতা অধ্যাপক মোঃ আলী আশরাফ এম.পি মহোদয়।

সন্মানিত পৌরবাসী আপনাদের ভোটে নির্বাচিত হলে আমি নিম্নলিখিত কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবো ইনশাল্লাহ-
১. মেয়র কার্যালয়ের দরজা পৌর নাগরিক বৃন্দের জন্য সর্বদা খোলা থাকবে এবং আমি পৌর পিতা নয় পৌর সেবক হব।
২.জনগনকে দেয়া ওয়াদা রক্ষা না করার রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসব।
৩. দূর্নীতি, স্বজনপ্রীতি্‌, চাঁদাবাজ মুক্ত সমাজ গড়তে আপোষহীন ভাবে কাজ করব।
৪. মাদকমুক্ত পৌর সভাঃ প্রতিটি ওয়ার্ড ও মহল্লায় মাদক প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।
৫. বিভিন্ন মন্ত্রণালয় , অধিদপ্তর ও সাহায্য সংস্থার সাথে যোগাযোগ করে চান্দিনা পৌরসভাকে বিভিন্ন প্রকল্পের অন্তর্ভূক্ত করে পৌর অবকাঠামো উন্নয়ন করা হবে। অপরপৃষ্ঠায়
৬. পৌরবাসীর জন্য নিরাপদ ও সুপেয় পানির নিরবিচ্ছিন্ন সরবরাহ নিশ্চিত করা হবে।
৭. পৌর ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নয়নের মাধ্যমে জলাবদ্দতা স্থায়ীভাবে নিরসন করা হবে।
৮. পৌরবাসীর নিরাপত্তার স্বার্থে গুরুত্বপূর্ন স্থানে সি.সি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে ।
৯. চান্দিনা বাজারের ফুটপাতে ব্যবসায়ীদের বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহন করে ফুটপাত দখল মুক্ত করা হবে।
১০. খালের দুই পাশে ওয়ার্কওয়ে নির্মাণ করা হবে বিভিন্ন ওয়ার্ডের গুরুত্বপূর্ণ সড়কে সোলার ল্যাম্প স্থাপন করা হবে।
১১. অন্তত মাসে একবার হলেও বিভিন্ন ওয়ার্ডের তরূন তরুনী ও উদ্যেগীদের সম্পৃক্ত করে পরিষ্কার পরিচ্ছনতার বিষয়ে কর্মশালা ও প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা কার্যক্রম জোরদার করা হবে।
১২. চান্দিনা বাজারে নারীদের জন্য পৃথক আধুনিক শপিং মল করা হবে।
১৩. বর্জ্য নিষ্কাসনের জন্য আধুনিক বর্জ্য শোধনাগার নির্মান করা হবে।
১৪. বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থানের জন্য আইটি প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করা হবে।
১৫. করোনা মহামারী সহ মশা – মাছি বাহিত রোগ প্রতিরোধ ও কুকুরের উপদ্রব থেকে মুক্তি পাওয়ার চলমান কার্যক্রম জোরদার করা হবে।
১৬. খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডকে গতশীল করার লক্ষ্যে ব্যায়ামাগার ও একটি পূর্নাঙ্গ পৌর পার্ক করা হবে।
১৭. পৌর উদ্যেগে একটি মান সম্পন্ন স্কুল এন্ড কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হবে।
১৮.পৌর সভার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সকল শ্রেণিতে ১ম হওয়া শিক্ষার্থীদের অনুপ্রেরণা দেয়ার জন্য
পুরষ্কার ও বৃত্তি প্রদান করা হবে।
১৯ . সম্ভাব্য সড়ক সম্প্রসারণ করা হবে যাতে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ী চলাচল সুগম হয়।
২০ .বিদ্যমান সামাজিক নিরাপত্তার পরিধি বৃদ্ধি করা হবে।
২১.রাস্তার যানজট নিয়ন্ত্রনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
ধন্যবাদান্তে
মোঃ শওকত হোসেন ভুঁইয়া

Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker