আন্তর্জাতিকজাতীয়ফিচাররাজনীতি

খালেদা জিয়ার কিছু হলে দায় সরকারের : বিএনপি

খালেদা জিয়ার কিছু হলে তার দায়দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে

প্রচন্ড অসুস্থ সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে সরকারের কাছে আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি সরকারকে সতর্ক করে বলেছেন, ‘খালেদা জিয়ার কিছু হলে তার দায়দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে।’

আজ মঙ্গলবার দুপুরে নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সুস্থতার জন্য আয়োজিত দোয়া মাহফিলে মির্জা ফখরুল এ কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘খালেদা জিয়া প্রচন্ড অসুস্থ। যা বলে বোঝানো যাবে না। গতকাল প্রথম সিসিইউতে তাঁর বেড থেকে থেকে চেয়ারে বসেছেন। অত্যন্ত দুর্বল অবস্থায় আছেন।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই ফ্যাসিস্ট আওয়ামী লীগ সরকারের বিচারের প্রহসনে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে খালেদা জিয়াকে অন্তরীণ করে রাখা হয়েছে। খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখার যে চক্রান্ত সেই চক্রান্তের অংশ হিসেবে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে রাখা হয়েছে। মিথ্যা মামলা সাজিয়ে রাজনীতি থেকে দূরে রাখার জন্য কেন্দ্রীয় কারাগারে একটা পরিত্যাক্ত ঘরে অন্তরীণ করে রেখেছে আড়াই বছর। তখন তাঁকে কোনো চিকিৎসা দেওয়া হয়নি। শেষ পর্যন্ত জনগণের চাপে তাঁকে পিজি হাসপাতালে আনা হয়। করোনার সময়ে ভয়ে তাঁকে বাসায় যাওয়ার অনুমতি দিল।’

চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘চিকিৎসকরা বলেছেন, উন্নত চিকিৎসা করতে হয়। যে ধরনের চিকিৎসা তাঁর প্রয়োজন তা দেশে নেই। এজন্যই তাঁকে বিদেশে নিতে হবে। কিন্তু সরকার সেই সুযোগ দিচ্ছে না। সরকারকে বলছি, অবিলম্বে তাঁকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেওয়া হোক।’

এন-কে

Close
Close