দাউদকান্দি

দাউদকান্দি উপজেলায় দেশের প্রথম “ভ্রাম্যমাণ করোনা ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ বুথ” চালু

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলায় দেশের প্রথম “ভ্রাম্যমাণ করোনা ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ বুথ” চালু করা হয়েছে।

 

(১০ মে, ২০২০) রোববার, সকাল ১১টায় দাউদকান্দির যারিফ আলী স্মৃতি পার্কের সামন থেকে দেশের প্রথম “ভ্রাম্যমাণ নমুনা সংগ্রহ বুথ” এর কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। মালদ্বীপস্হ ইয়েস বাংলা সমিতির চেয়ারম্যান মোকলেছ আকন্দের অর্থায়নে, দাউদকান্দি উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় ও মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলীর তদারকিতে কার্যক্রমটি বাস্তবায়িত হয়েছে।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বলেন, ভ্রাম্যমান করোনা স্যাম্পল বুথের মাধ্যমে দাউদকান্দি উপজেলার জনবহুল প্রতিটি স্থানে ঘুরে ঘুরে এবং হটলাইনে ফোন কলের মাধ্যমেও করোনা উপসর্গ বহনকারীদের কাছ থেকে স্যাম্পল সংগ্রহ করে পরীক্ষার নির্ণয়ের মাধ্যমে ফলাফল জানানো হবে।

 

এই বিষয়ে টেলিফোনে মেজর মোহাম্মদ আলী বলেন, করোনা ভাইরাস বাংলাদেশ বিস্তারের প্রথম থেকেই অব্যাহতভাবে জনসচেতনতা ও প্রতিরোধ কার্যক্রম কঠোরভাবে করে যাচ্ছি। ফলে এখন পর্যন্ত দাউদকান্দি উপজেলায় করোনা মহামারী আকারে বিস্তার লাভ করেনি এবং ভবিষ্যতে যেন এর বিস্তার ব্যাপক আকার ধারণ করতে না পারে, তাই উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের সমাজ সেবক মোকলেছ আকন্দের অর্থায়নে এই ভ্রাম্যমাণ করোনা স্যাম্পল সংগ্রহ বুথ চালু করা হয়েছে। কারো যদি করোনার উপসর্গ থাকে, সে হাসপাতালে আসতে আসতে ও আরো অনেকের মাঝে এটি ছড়াতে পারে। তাই সকলের সেবায় এই গাড়িটি উপজেলার সর্বত্র ঘুরে বেড়াবে এবং যাদের মধ্যে উপসর্গ আছে কিংবা করোনার পরীক্ষা করতে চান, তারা প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীর মাধ্যমে স্যাম্পল দিতে পারবেন।

 

ভ্রাম্যমান করোনা স্যাম্পল সংগ্রহ বুথের সংশ্লিষ্ট দায়িত্বে থাকা, সোহেল রানা বলেন,হটলাইনে ফোন কলের ভিত্তিতে দাউদকান্দি উপজেলার যেকোন স্থানে করোনা উপসর্গের স্যাম্পল সংগ্রহ করা হবে।

 

দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ শাহিনূর আলমের উপস্থিতিতে বুথের কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়, এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক অফিসার ডাঃ জামাল ,উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিঃআব্দুস সালাম, যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হেলাল মাহমুদ,উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ সভাপতি সোহেল রানা, যুবলীগ নেতা সুমন চৌধুরী,খাজা প্রধানসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Close
Close