অর্থনীতি

তেজপাতার উপকারিতা

তেজপাতার উপকারিতা

ঘামাচি সারায়, চোখ ওঠা উপশম করে, গলা ভাঙা দ্রুত সারাবে, ফোঁড়া সারাতে, দুর্বলতা দূরে করে, মাড়ির ক্ষতের চিকিৎসায় ও অরুচি দূর করে তেজপাতা ।

ঘামাচি দূর করা : তেজপাতা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন, তারপর পাটায় মিহি করে বেটে নিন। এই তেজপাতা বাটা শরীরে মেখে ঘণ্টা খানেক রাখুন। তারপর গোসল করে ফেলুন। কোন রকম সাবান ব্যবহার করবেন না। কয়েকবার ব্যবহার করলেই ঘামাচি একদম সেরে যাবে।

চোখ ওঠা উপশমে : তেজপাতা পানিতে ফুটিয়ে নিন। সেই পানি ঠাণ্ডা করে চোখ ধুতে ব্যবহার করুন। চোখ ওঠা দ্রুত আরোগ্য হবে। সকালে ও বিকালে দুই বেলা দেবেন।

গলা ভাঙা দ্রুত সারাতে : জলদি ভাঙা গলা ঠিক করতেও তেজপাতার বিকল্প নেই। ৭ গ্রাম তেজপাতা ৪ কাপ পানিতে সিদ্ধ করে ২ কাপ করে নিন। এরপর ওই পানি দিয়ে গড়গড়া করুন। গলাভাঙা দ্রুত ঠিক হয়ে যাবে।

ফোঁড়া সারানোর জন্য তেজপাতা বেটে আক্রান্ত স্থানে ব্যবহার করুন। দ্রুত সেরে যাবে।

দুর্বলতা দূরে করে : শারীরিকভাবে দুর্বল ও রোগা মানুষদের জন্য তেজপাতা দারুণ কার্যকরী। কয়েকটা পাতা থেঁতলে করে ২ কাপ গরম পানিতে ১০-১২ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখুন। এরপর ছেঁকে নিয়ে পান করুন। ২ বার করে টানা ২ সপ্তাহ খেলে শরীরে শক্তিও চেহারায় লাবণ্য ফিরে পাবেন।

মাড়ির ক্ষতের চিকিৎসায় : মাড়ি দিয়ে রক্ত পড়ে? তেজপাতা শুকিয়ে গুঁড়ো করে নিন। তারপর সেটা দিয়ে নিয়মিত দাঁত মাজুন। মাড়ির ক্ষত সেরে যাবে।

অরুচি দূর করে : তেজপাতা সিদ্ধ পানি দিয়ে নিয়মিত কুলি করুন, অরুচি ও মুখের তেতো ভাব চলে যাবে।

Close
Close