অর্থনীতি

ঢাকা ছেড়ে যাওয়া ১৫ শতাংশ মানুষ। বেঁচে থাকার জন্য দরকার উদ্যাগ!

ঢাকা ছেড়ে যাওয়া ১৫ শতাংশ মানুষ। বেঁচে থাকার জন্য দরকার উদ্যাগ!

 

নভেল করোনাভাইরাসের প্রভাবে বিপর্যস্থ অর্থনীতিতে সবচেয়ে বড় প্রভাব  পড়েছে কর্মসংস্থানে। এরমধ্যে ঢাকা ছেড়েছে এই শহরে বসবাসরত ১৫ শতাংশের বেশি  মানুষ। যারা অধিকাংশই অনানুষ্ঠানিক (ইনফরমাল সেক্টর) কর্মে নিযুক্ত ছিলেন।  বিপদগ্রস্ত এসব মানুষ গ্রামে ফিরেছে। প্রথমবারের মতো দেশে এটাই রিভার্স  মাইগ্রেশন (শহর থেকে গ্রামমুখী হওয়া) হয়েছে বলে মনে করছে বেসরকারি দুইটি  গবেষণা প্রতিষ্ঠান। (পিপিআরসি-বিআইজিডি ওয়েবিনার)

 

পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টার  (পিপিআরসি) এবং ব্রাক ইনস্টিটিউট অব গর্ভানেন্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট  (বিআইজিডি) আয়োজিত এক ওয়েবিনারে সংস্থা দুটি একটি জরিপের প্রাথমিক ফলাফলে  এসব তথ্য তুলে ধরেন। প্রতিষ্ঠান দুটি করোনাকালে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের  আত্মবিশ্বাস ফেরাতে জরুরি কৌশল নির্ধারণ প্রয়োজন বলেও মতামত দিয়েছে।

 

দক্ষিণ এশিয়ার প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে বেকারত্বের হার বাংলাদেশেই বেশি।  ২০১০ সালের পর থেকে প্রতিবেশী দেশ শ্রীলঙ্কা ও ভুটান এ হার কমিয়ে এনেছে।  ভারতে স্থিতিশীল রয়েছে। তবে বেড়েছে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও নেপালে।

 

সরকার যদি ব্যবসা আর উদ্যোক্তাবান্ধব পরিবেশ না সৃষ্টি করতে পারে তাহলে  ভবিষ্যতে বড় ধরনের সমস্যা তৈরি হবে। আর দুর্নীতিতে লাগাম লাগানো তো  আকাশকুসুম কল্পনা। সেই সাথে নিজের ইচ্ছেকে গুরুত্ব দিয়ে আগাতে হবে।

Close
Close